জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‍্যালি ও আলোচনা সভা খাগড়াছড়িতে

প্রকাশিত: ১২:২২ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৩, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি :২৩ এপ্রিল’১৯

“খাদ্যের কথা ভাবলে, পুষ্টির কথাও ভাবুন” প্রতিপাদ্য নিয়ে খাগড়াছড়িতে জেলার পুষ্টি সমন্বয় কমিটি আয়োজনে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে  টাউন হল প্রাঙ্গণ থেকে বনার্ঢ্য র‍্যালি বের হয়ে শহরে গুরুন্তপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন করে অফিসার ক্লাবের গিয়ে আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত আলোচনা সভায় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকতার্ মেমং মারমা সঞ্চালনায় খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন জনাব মো: ইদ্রিস মিঞা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাহ উদ্দিন, খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকতার্ ডাঃ উচসিং ও খাগড়াছড়ি সদর আধুনিক হাসপাতালে আরএমও নয়নময় ত্রিপুরাসহ সরকারী ও বেসকারী এনজিও সংস্থা উর্ধ্বতন কর্মকতার্রা উপস্থিত ছিলেন।

খাগড়াছড়ি সিভিল সার্জন জনাব মো: ইদ্রিস মিঞা  বক্তব্যে বলেন, জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ ২৩ থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত জেলার নয়টি উপজেলার উপজেলা ভিত্তিক জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ পালন করা হবে। তিনি আরো বলেন খাগড়াছড়ি পাহাড়ী এলাকায় যথেষ্ট আয়োডিন যুক্ত পানি রয়েছে।  পানি পান করে নারী ও পুুরুষ আয়োডিন পাচ্ছে। দেশের প্রতিটি নাগরিককে সম্পদ হিসেবে গড়ে তুলতে নারী-পুরুষ ও শিশুদের জন্য মানসম্পন্ন পুষ্টি নিশ্চত করা জরুরি। এজন্য খাদ্যের সঙ্গে পুষ্টির কথা ভাবতে হবে।

জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম বক্তব্যে বলেন, প্রতিটি খাবার পরিস্কার পরিচ্ছনśতা আছে কিনা দেখে খাবার খেতে হবে। মানুষের খাবার প্রতি সচেতনতায় বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই বর্তমানে দেশে পুষ্টিহীনতায় শিশু ও মাতৃ মৃত্যু হার কমেছে। তবে এখনোও  দূর্গম পাহাড়ী এলাকায় পুষ্টি খাবারে  সচেতনতায় অভাব রয়েছে। সে সব এলাকায় দায়িত্ব  প্রাপ্ত মাঠ কর্মকতার্রা গ্রামে গিয়ে উঠান বৈঠক মাধ্যমে সচেতনতা বিষয়ে বেশী করে আলোচনা করতে হবে বলে বলেন।

 

ডিএ/আরটি/কেএম