মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:১১ পূর্বাহ্ন

রামগড়ে ইউএনডিপি’র খাদ্য সহায়তা প্রদান করলেন সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা

প্রতিনিধি, রামগড় (খাগড়াছড়ি) ||
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ১২৮ পাঠক সংখ্যা

খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ে কোভিড-১৯ এর কারণে চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ ১৫’শ ৯৬টি পরিবারের পাশে খাদ্য ও বীজ সহায়তা নিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছে জাতিসংঘ উন্নয়ন সংস্থা (ইউএনডিপি)।

পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন স্ট্রেনদেনিং ইনক্লুসিভ ডেভেলপমেন্ট ইন চিটাগং হিল ট্রাক্টস (এসআইডি-সিএইচটি) প্রকল্পের আওতায় ইউএনডিপি দাতা সংস্থা ডানিডা ও ইউএসএআইডির আর্থিক সহযোগিতায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

মঙ্গলবার (১১ই আগষ্ট) উপজেলার পাতাছড়া ইউনিয়নে সলিডারিটি প্যাক বিতরণের মাধ্যমে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, ভারত প্রত্যাগত ও অভ্যন্তরীণ উপজাতীয় শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান ও খাগড়াছড়ি সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।

৫’শ ১০টি অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের হাতে খাদ্য ও বীজ তুলে দিয়ে এসময় তিনি স্থানীয়দের প্রত্যেক ইঞ্চি জমি চাষ করার অনুরোধ করেন এবং মাষ্ক ব্যবহার, স্বাস্থ্য বিধি পালন ও সামাজিক দুরুত্ব মেনে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে নিজে এবং নিজের পরিবারের বাঁচানোর অনুরোধ জানান।

তিনি আরও বলেন, ৭১ রে বীর মুক্তিযোদ্ধারা অস্ত্র নিয়ে যুদ্ধ করেছে আর এখন আমরা স্বাস্থ্য সচেতনতা ও খাদ্য সহায়তা নিয়ে যুদ্ধ করছি সুতরাং সবাইকে সচেতন থেকে মহামারী মোকাবেলা করতে হবে এবং এ যুদ্ধে আমাদের বিজয় হতেই হবে।

খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের মার্কেট ডেভেলপমেন্ট ফেসিলেটর মো. রবিউল ইসলামের সঞ্চালনায় পাতাছড়া ইউপি চেয়ারম্যান মনিন্দ্র ত্রিপুরার সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম সংরক্ষিত মহিলা সাংসদ বাসন্তি চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য মংশেপ্রু চৌধুরী অপু, জেলা পরিষদ সদস্য এডভোকেট আশুতোষ চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য খোকনেশ্বর ত্রিপুরা, রামগড় উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদীপ কুমার কারবারী, রামগড় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সজীব কান্তি রুদ্র, রামগড় পৌর মেয়র মোহাম্মদ শাহজাহান কাজী রিপন, ইউএনডিপি জেলা প্রতিনিধি উশিংমং চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোস্তফা হোসেন প্রমুখ।

ইউএনডিপি সূত্রে জানা গেছে, রামগড় উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ২ টি ইউনিয়নের ১৫’শ ৯৬টি অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের জন্য ১০ প্রকারের দ্রব্যাদি বিতরণ করা হয়। এসময় প্রত্যেক পরিবারকে চাল ১৫ কেজি, ডাল ২ কেজি, লবণ ১ কেজি, সয়াবিন তেল ১ লিটার, পিয়াজ ১ কেজি, আলু ৫ কেজি, সাবান ২ টি, সবজি বীজ ৭ প্যাকেট (করলা বীজ ১০গ্রাম, ঢ়েড়স বীজ ১০গ্রাম, মিষ্টি কুমড়া বীজ ১০গ্রাম, শসা বীজ ১০গ্রাম, লাউ বীজ ১০গ্রাম, পুঁইশাক বীজ ১০গ্রাম, চালকুমড়া বীজ ১০গ্রাম করে), মাস্ক ৪ পিস ও সচেতনতাবৃদ্ধির লক্ষ্যে করোনা বিষয়ক ১টি ও বন্যপ্রাণী ও বন সংরক্ষণ বিষয়ক ১টি করে পোস্টার বিতরণ করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো সংবাদ
error: